You are currently viewing ইংরেজি উচ্চারণ কৌশল
ইংরেজি উচ্চারণ

ইংরেজি উচ্চারণ কৌশল

জানতে পারবে, ইংরেজি উচ্চারণ কৌশল, ইংরেজি উচ্চারণ শেখার কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ নিয়ম এবং ইংরেজি বিভিন্ন শব্দের উচ্চারণের সঠিক নিয়ম।

নিয়ম:-১

শব্দের শুরুতে KN থাকলে তার উচ্চারণ হবে “ন”K এর উচ্চারণ হবে না।
যেমন:-

Knowledge (নলেজ) = জ্ঞান
Knee (নী) = হাটু।

নিয়ম:-২

কোন শব্দের শেষে e থাকলে e এর উচ্চারণ হয় না।
যেমন:

Fake (ফেইক) = ভূয়া
Take (ঠেইক) = নেওয়া

নিয়ম:-৩

W এর পরে h/r থাকলে “w”  এর উচ্চারণ হয় না।

যেমন:-
Write (রাইট) = লেখা
Who (হু) = কে, Wrong (রং) = ভুল

নিয়ম:- ৪

Word এর শেষে (I G N) থাকলে তার উচ্চারণ “আইন” হয়। এ ক্ষেত্রে G এর উচ্চারণ হয় না।

যেমন:-

Design (ডিজাইন) = আকা
Reign (রেইন) – রাজত্ব

নিয়ম:- ৫

igh এর উচ্চারণে G উচ্চারিত হয় না। সেই অংশটুকুর উচ্চারণ হয় “আই”।

যেমন:-

Sight (সাইট) = দৃশ্য
Night (নাইট) = রাত্র

নিয়ম:-৬

কোন শব্দে ear এভাবে থাকে তাহলে E A এর উচ্চারণ “ঈঅ্যা” হয়।

Bear (বিয়্যার) = বহন করা, Dear (ডিয়্যার) = প্রিয়।

নিয়ম:- ৭

Consonant+ EA+ consonant (R ছাড়া) ব্যবহৃত হলে EA এর উচ্চারণ ঈ এর মত হবে।

যেমন:-

Tread (ট্রেড) = পদদলিত করা

Feather (ফেদার) = পালক

নিয়ম:- ৮

শব্দে stl এর উচ্চারণ হয় “সল্” এখানে T উচ্চারণ হয় না।

যেমন:-

Nestle (নেসলে) = বাসা বাঁধা
Bustle (বাসল্) = অতিশয় কর্ম ব্যস্ততা

নিয়ম:- ৯

শব্দে OA+ R থাকলে, OA এর উচ্চারণ হয়  “অ্য” এর মত।
যেমন:-

Board (বোর্ড) – মোটা শক্ত কাগজ
Road (রোড) – রাস্তা
Boat (বোট) – নৌকা

নিয়ম:- ১০

UI+ consonant+ A/E/O এভাবে শব্দ গঠিত হলে  UI এর উচ্চারণ হয় “আই” এর মত

যেমন:-
Guide (গাইড) – পথ প্রদর্শক।

নিয়ম:- ১১

EE+ consonant (R ব্যতিত) এভাবে ব্যবহৃত হলে, EE এর উচ্চরণ “ঈ” হয়।

যেমন:-

Steel (স্টীল) – ইস্পাত
Need (নীড) – প্রয়োজন

নিয়ম:-১২

শব্দে C এর পরে যদি I, E, Y থাকে তাহলে তার উচ্চারণ “স” এর মত উচ্চারিত হবে।

যেমন:-

Circle (সার্কেল) = বৃত্ত
Center (সেন্টার) = কেন্দ্র
Cyclone (সাইক্লোন) = ঘূর্ণিঝড়

নিয়ম:- ১৩

শব্দে Consonant এর পর bt এর উচ্চারণ “ট” এক্ষেত্রে “B” এর উচ্চারণ হয় না।

যেমন:-

Debt (ডেট) = ঋণ
Doubt (ডাউট) = সন্দেহ

নিয়ম:- ১৪

LK এর আগে E বা U না থাকলে LK এর উচ্চারণ হবে “ক” এবং “L” এর উচ্চারণ হবে না।

যেমন:-

Walk (ওয়াক) = হাটা
Talk (টক) = আলাপ।

নিয়ম:- ১৫

শব্দে CC+ OU/ consonant থাকলে CC এর উচ্চারণ “ক” এর মত হবে।

যেমন:-
Accuse (এ্যাকিউজ) = অভিযুক্ত করা

নিয়ম:- ১৬

কোন শব্দে “T” থাকলে “T” এর পরে U থাকলে T এর উচ্চারণ “চ” এর মত হয়।

যেমন:-
Lecture (লেকচার) = বক্তৃতা
Furniture (ফার্নিচার) = আসবাবপত্র
Century (সেঞ্চুরী) = শতক

নিয়ম:- ১৭

I O এর উচ্চারণ “আইয়” হয়।

যেমন:-
Biology (বাইয়োলজি) = জীব বিদ্যা
Violet (ভাইয়লেইট) = বেগুনী রঙ

নিয়ম:- ১৮

EA+ R+ consonant এভাবে শব্দ গঠিত হলে, EA এর উচ্চারণ “অ্যা” হবে।

যেমন:-

Earn (আর্ন) = আয় করা
Earth (আর্থ) = পৃথিবী

নিয়ম:- ১৯

P+ S পরপর থাকলে এবং P এর আগে কোন vowel না থাকলে P এর উচ্চারণ হয় না।

যেমন:-
Psycho (সাইকো) = মন

Psyche (সাইকি) = আত্মা

নিয়ম:- ২০

শব্দে শেষে tch থাকলে এর উচ্চারণ “চ” এর মত হয়।
যেমন:-

Match (ম্যাচ) =  ক্রীড়া প্রতিযোগিতা Batch (ব্যাচ) = ক্ষুদ্রদল
Scratch (স্ক্র্যাচ) = আচঁড়ের দাগ

নিয়ম:- ২১

শব্দে OE এর উচ্চারণ হয় “ঈ” এর মত।
Amoeba (এ্যামিবা) = এক কোষী প্রাণী

নিয়ম:- ২২

শব্দের মধ্যে E+ R ছাড়া অন্য Consonant ব্যবহৃত হলে “E” এর উচ্চারণ  “এ” বা “ই” হয়।

যেমন:-
Comment (কমেন্ট) = মন্তব্য, Rent (রেন্ট) = ভাড়া

নিয়ম:- ২৩

R+ vowel+ CH এভাবে ব্যবহৃত হলে CH এর উচ্চারণ “চ” হয়।

যেমন:-

Branch (ব্রাঞ্চ) = শাখা
Approach (অ্যাপ্রোচ) = অভিগমন

নিয়ম:- ২৪

Y  একটি সিলিভল শব্দে “আই” এর মত উচ্চারিত হয়।

যেমন:-

Buy (বাই) = ক্রয় করা
Fly (ফ্লাই) = উড়া

নিয়ম:- ২৫

Word এর শেষে mn এর পরে কোন vowel না থাকলে এবং mn পরপর থাকলে N এর উচ্চারণ হয় না।

যেমন:-
Condemn (কনডেম) = দোষারোপ করা।

নিয়ম:- ২৬

Word এর শেষে que এর উচ্চারণ “ক” এর মহ হয়।

যেমন:-
Cheque (চেক) = কিস্তি

নিয়ম:- ২৭

KN বা GN এর আগে vowel থাকলে K ও G উচ্চারিত হয়।

যেমন:-

Acknowledgement (এ্যাকনলেজমেন্ট) = স্বীকৃতি
Agnostic (এ্যাগনষ্টিক) = অজ্ঞেয়

নিয়ম:- ২৮

কোন শব্দে U এর পর consonant+ vowel+… থাকলে U এর উচ্চারণ “ইউ” এর মত হয়।

যেমন

Tube (টিউব) = নল
Mute (মিউট) =  স্তব্ধ

আরো জানুন

ছয় ঋতুর নাম ইংরেজিতে

Share this

Leave a Reply