কোণ কাকে বলে | স্থূলকোণ কাকে বলে

কোণ কাকে বলে

কোণ:- যদি দুইটি সরলরেখা পরস্পরের সাথে কোনো বিন্দুতে মিলিত হয়, তবে মিলন বিন্দুতে কোণ উৎপন্ন হয়।

অথবা

দুটি সরলরেখা তির্যকভাবে পরস্পরের সাথে মিলিত হলে মিলিত বিন্দুতে কোণ উৎপন্ন হয়।

চিত্র:- ABC একটি কোণ

কোণ কত প্রকার ও কি কি

বিভিন্ন প্রকার কোণ নিয়ে নিম্নে আলোচনা করা হলো:-

সমবাহু ত্রিভুজের ক্ষেত্রফল

সমকোণ কাকে বলে

সমকোণ:- যে কোণের পরিমাণ ৯০ ডিগ্রি তাকে সমকোণ বলে। অর্থাৎ ৯০ ডিগ্রি পরিমান কোণকে সমকোণ বলে।

মনেরেখো:- একটি কোণ দেখতে যে রকমই হোকনা কেন তার পরিমান যদি ৯০ ডিগ্রি হয় তাহলে তাকে সমাকোণ বলা যাবে।

সূক্ষ্মকোণ কাকে বলে

সূক্ষ্মকোণ:- এক সমকোণ বা ৯০ ডিগ্রি থেকে ছোট কোণকে সূক্ষ্মকোণ বলে।

চিত্র:- a একটি সূক্ষ্ম কোণ

স্থূলকোণ কাকে বলে

স্থূলকোণ:- এক সমকোণ থেকে বড় কিন্তু দুই সমকোণ থেকে ছোট কোণকে স্থূলকোণ বলে।

অথবা, ৯০ ডিগ্রি থেকে বড় কিন্তু ১৮০ ডিগ্রি থেকে ছোট কোণকে স্থূলকোণ বলে।

চিত্র:- স্থূলকোণ

সরলকোণ কাকে বলে

সরলকোণ:- যে কোণের পরিমান ১৮০ ডিগ্রি তাকে সরলকোণ বলে।

চিত্র: সরলকোণ

প্রবৃদ্ধ কোণ কাকে বলে

প্রবৃদ্ধ কোণ:-  যে কোণের পরিমান দুই সমকোণ অপেক্ষা বেশি কিন্তু চার সমকোণ অপেক্ষা কম তাকে প্রবৃদ্ধ কোণ বলে।

অর্থাৎ যে কোণের পরিমান ১৮০ ডিগ্রি থেকে বড় কিন্তু ৩৬০ ডিগ্রি থেকে ছোট তাকে প্রবৃদ্ধ কোণ বলে।

চিত্র:- প্রবৃদ্ধ কোণ

বিপ্রতীপ কোণ কাকে বলে

বিপ্রতীপ কোণ:- দুইটি সরলরেখা পরস্পরকে ছেদ করলে ছেদবিন্দুতে যে চারটি কোণ উৎপন্ন হয় তাদের একটিকে সম্মূখীনটির বিপ্রতীপ কোণ বলে।

চিত্র:- বিপ্রতীপ কোণ

সন্নিহিত কোণ কাকে বলে

সন্নিহিত কোণ:- দুইটি কোণের শীর্ষবিন্দু একই হলে সাধারণ বাহুর উভয় পাশের কোণদ্বয়কে সন্নিহিত কোণ বলে। অর্থাৎ পাশাপাশি লাগানো দুটি কোণকে সন্নিহিত কোণ বলে।

পূরক কোণ কাকে বলে এবং সম্পূরক কোণ কাকে বলে

একান্তর কোণ কাকে বলে

একান্তর কোণ:- দুইটি সমান্তরাল সরলরেখাকে অপর একটি সরলরেখা তির্যকভাবে ছেদ করলে ছেদকরেখার বিপরীত পার্শ্বে সমান্তরাল রেখা যে কোণ উৎপন্ন করে, তাকে একান্তর কোণ বলে। একান্তর কোণদ্বয় পরস্পর সমান হয়।

অনুরূপ কোণ কাকে বলে

অনুরূপ কোণ:- দুইটি সমান্তরাল সরলরেখাকে অপর একটি সরলরেখা তির্যকভাবে ছেদ করলে ছেদকরেখার একই দিকে সমান্তরাল রেখাদ্বয়ের অনুরূপ পার্শ্বে যে কোণ উৎপন্ন হয়, তাকে অনুরূপ কোণ বলে। অনুরূপ কোণদ্বয় পরস্পর সমান হয়।

অন্ত:স্থ কোণ কাকে বলে

অন্ত:স্থ কোণ:- যে কোন ত্রিভুজ, চতুর্ভুজ এবং বহুভুজের অভ্যন্তরে বা ভেতরে যে কোণ উৎপন্ন হয় তাকে অন্ত:স্থ কোণ বলে।

বহি:স্থ কোণ কাকে বলে

বহি:স্থ কোণ:- কোন ত্রিভুজ, চতুর্ভুজ এবং বহুভুজের যে কোন এক বাহু বর্ধিত করলে বাহিরে যে কোণ উৎপন্ন হয় তাকে বহি:স্থ কোণ বলে।

চিত্র:- বহি:স্থ কোণ

কোণ থেকে বিভিন্ন পরীক্ষায় আসা প্রশ্ন:-

১। দুই সমকোণ অপেক্ষা বড় ও চার সমকোণ অপেক্ষা ছোট কোণকে বলে-

(ক) সরলকোণ

(খ) স্থূলকোণ

(গ) সূক্ষ্মকোণ

(ঘ) প্রবৃদ্ধকোণ

উত্তর: (ঘ) প্রবৃদ্ধকোণ

২। একটি সমকোণে থাকে-

(ক) ৬০ ডিগ্রি

(খ) ৬৫ ডিগ্রি

(গ) ৮৫ ডিগ্রি

(ঘ) ৯০ ডিগ্রি

উত্তর: (ঘ) ৯০ ডিগ্রি

৩। একটি কোণের মান ১৫০ ডিগ্রি হলে তাকে কি কোণ বলে?

(ক) সরলকোণ

(খ) স্থূলকোণ

(গ) সূক্ষ্মকোণ

(ঘ) প্রবৃদ্ধকোণ

উত্তর: (খ) স্থূলকোণ

৪। দুই সমকোণ অপেক্ষা বড় চার সমকোণ অপেক্ষা ছোট কোণকে বলে-

(ক) সরলকোণ

(খ) স্থূলকোণ

(গ) সূক্ষ্মকোণ

(ঘ) প্রবৃদ্ধকোণ

উত্তর: (ঘ) প্রবৃদ্ধকোণ

৫। একটি কোণের মান ৮০ ডিগ্রি হলে তাকে কি কোন বলে-

(ক) সরলকোণ

(খ) স্থূলকোণ

(গ) সূক্ষ্মকোণ

(ঘ) প্রবৃদ্ধকোণ

উত্তর: (গ) সূক্ষ্মকোণ

৬। ২৫৩ ডিগ্রি কোণকে কি কোন বলে-

(ক) সরলকোণ

(খ) স্থূলকোণ

(গ) সূক্ষ্মকোণ

(ঘ) প্রবৃদ্ধকোণ

উত্তর: (ঘ) প্রবৃদ্ধকোণ

৭। একটি সরলরেখার সাথে অপর একটি রেখাংশ মিলিত হলে যে দুটি সন্নিহিত কোণ উৎপন্ন হয়, তাদের সমষ্টি-

(ক) ১৬০ ডিগ্রি

(খ) ১৬৫ ডিগ্রি

(গ) ১৮০ ডিগ্রি

(ঘ) ১৯০ ডিগ্রি

উত্তর: (গ) ১৮০ ডিগ্রি

৮। সন্নিহিত সরলকোণের একটি কোণ ৯৫ ডিগ্রি হলে অপরটি কত ডিগ্রি-

(ক) ৮৫ ডিগ্রি

(খ) ৬৫ ডিগ্রি

(গ) ৮০ ডিগ্রি

(ঘ) ১৯০ ডিগ্রি

উত্তর: ৮৫ ডিগ্রি

Share this

This Post Has One Comment

  1. Unknown Guy

    Gooddddd

Leave a Reply